Silchar news paper today বাগডিহর থেকে সন্দেহভাজন ISI এজেন্ট গ্রেফতার

Silchar news paper today সাতদিনের রিমান্ডে আনল পুলিশ Silchar news paper

Silchar news paper today

ভাগাডহরে ধৃত আলম রােহিঙ্গা জঙ্গি , আইএসআই - র এজেন্ট

Silchar news paper today

বেরেঙ্গা চতুর্থ খণ্ডের ভাগাডহর গ্রাম থেকে ধৃত আলম হােসেন মজুমদার ওরফে আলম চৌধুরী । সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য রয়েছে আসাম রাইফেলসের কাছে । শুক্রবার রাতে ভাগাডহরে শ্বশুরবাড়ি থেকে পড়ার পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়ে এফআইআর সহ আলমকে শিলচর পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন আসাম রাইফেলস কর্তৃপক্ষ । তাদের দায়ের করা এফআইআর - এ বলা হয়েছে , আলম পাকিস্তানি গােয়েন্দা সংস্থা আইএসআই র সন্দেহভাজন চর

 সে পাক গােয়েন্দা সংস্থার দক্ষিণ অসম এলাকার স্লিপার সেলের সদস্য । শুধু তাই নয় , আলম । পাশাপাশি মায়াম্মারের জঙ্গি সংগঠন আরাকান রােহিঙ্গা সালভেশন আর্মির সদস্যও । শিলচর সদর থানার ওসি দিতুমণি গােস্বামী শনিবার জানান , আসাম

রাইফেলসের এ দায়ের করা এফআইআর - এ আলম সম্পর্কে এসব তথ্যের উল্লেখ করা হয়েছে । এর ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে । তিনি জানান , আলম হােসেন মজুমদারকে এদিন সিজেএম ।

Silchar news paper today

 Silchar news paper

আদালতে হাজির করা হলে বিচারপতি সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন গােস্বামী আসাম রাইফেলস - এর এফআইআর - এর উদ্ধৃতি দিয়ে জানান , আলমের কাছ থেকে নিরাপত্তা বাহিনী আরও বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর নথি উদ্ধার করেছে এইসব নথির ভিত্তিতে জানা গিয়েছে তার জন্মের প্রমাণপত্র ১৯৯৬ সালে লক্ষীপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে ইস্যু করা হয়েছে । এসবের বাইরেও আলমের রয়েছে প্যান কার্ড , ব্যাঙ্কের । পাসবুক । এই বিষয়গুলাে পুলিশ । বর্তমানে পরীক্ষা - নিরীক্ষা করে

দেখছে । তদন্তের পরই এইসব নথি সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে । উল্লেখ্য , গােপন সূত্রের খবরের ভিত্তিতে আসাম রাইফেলস - এর এক বড়সড় দল শুক্রবার রাতে ভাগাডহরে আজিজুর রহমান লস্কর নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে আলমকে আটক করে । আলমের শ্বশুর আজিজুর বলে সে দাবি করেছে । বছর কয়েক আগে আজিজুরের মেয়েকে বিয়ে করে সে । রয়েছে দুটি সন্তানও ।

ইতিমধ্যে আসাম রাইফেলস - এর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ' আলম স্বীকার করেছে তার বাড়ি মায়াম্মারের রাখাইন রাজ্যে । সেখানে নিগ্রহের শিকার হয়ে বেশ কয়েক বছর আগে অন্যান্যদের সঙ্গে সেও বাংলাদেশে পালিয়ে যায় সেখান থেকে সৌদিআরব , আফগানিস্তান এবং পাকিস্তান হয়ে ফের বাংলাদেশে আসে ।

এবং বাংলাদেশ থেকেই করিমগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে প্রায় নয় বছর আগে অসমে ঢুকে । কিন্তু ভাগাডহরে আস্তানা গড়ার আগে অসমের আর কোন কোন জায়গায় সে ছিল সে সম্পর্কে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে । উল্লেখ্য , স্লিপার সেলের সদস্যদের আইএসআই নানা ধরনের আক্রমণের কাজে ব্যবহার করে ।

এই ধরনের সদস্যরা জানতেই পারে না তারা কার কাছ থেকে নির্দেশ পাচ্ছে ইতিপূর্বে কোকরাঝাড়ে একাধিক রক্তাক্ত হামলার ঘটনায় যে এনডিএফবি ( এস ) জড়িত ছিল এদেরও মদতদাতা হিসেবে আইএসআই - কে শনাক্ত করা হয়েছে ।



Silchar news Live

 এমনকি মায়াম্মারে আলফা জঙ্গিশিবির পরিচালনার ক্ষেত্রেও যাবতীয় তহবিল জোগান দিয়ে থাকে পাকিস্তানি এই গােয়েন্দা সংস্থা । এসব তথ্য ইতিপূর্বেভারতীয় কর্তৃপক্ষের নজরে এসেছে ।

Comments