Skip to main content

শিলচর আজকের খবর নিকাশি ব্যবস্থা লাটে , জমাজলে দিনভর নাকাল শহর শিলচর

বাংলা নিউজ.পেপার. বাংলা খবর. নিউজ বাংলা. 
পেপার


বাংলা পেপার,  শিলচর , ১১ জুলাই : দ্রুত জল বাড়ছে বরাকে বিপদসীমার অনেক নীচে দিয়ে বইলেও , জলস্তর বৃদ্ধির হারে জনমানসে সৃষ্টি হয়েছে শঙ্কার ও জলসম্পদ বিভাগের সূত্রে জানা গেছে , বৃহস্পতিবার রাত ৯ টায় শিলচর অন্নপূর্ণাঘাটে বরাক নদীর জলসীমা ছিল ১৮ . ২২ মিটার সেখানে বুধবার রাত ৯ টায় জলসীমা ছিল ১৬ . ৫৫ মিটার । বৃহস্পতিবার সকালের দিকে জল বেড়েছে ঘণ্টায় ৯ - ১০ সেন্টিমিটার করে , সন্ধ্যার পর অবশ্য বাড়ার গতি কিছুটা কমে এসে দাঁড়িয়েছে ৭ - ৮ সেন্টিমিটারে অন্নপূর্ণাঘাটে বরাক নদীর বিপদসীমা ১৯ . ৮৩ মিটার ।

 এদিকে , বুধবার সকাল আটটা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল আটটা পর্যন্ত শিলচরে বৃষ্টি হয়েছে ৫২ ৪০ মিলিমিটার । যার দরুন এদিন সকালে শহরের বিভিন্ন এলাকা চলে যায় জলের তলায় । অম্বিকাপট্টি , শিলংপট্টি , লিঙ্ক রােড , সােনাই রােড , হাইলাকান্দি রােড ও ন্যাশনাল হাইওয়ে এসব এলাকায় রাস্তাঘাট সহ বহু বাড়িঘর জলের তলায় চলে যাওয়ায় দুর্ভোগের মধ্যে পড়তে হয় । শহরবাসীকে ।

পেপার. বাংলা নিউজ. বাংলা খবর. নিউজ বাংলা. বাংলা.


খবর বাংলা

 বিকেলের অবশ্য । বেশিরভাগ এলাকা থেকেই জল । নেমে যায় । এদিনও জমা জলের দরুন দুর্ভোগের জেরে শহরের বিভিন্ন এলাকায় নিকাশি ব্যবস্থাকে ঘিরে শুনা গেছে তীব্র ক্ষোভের সুর । বিশেষত নিকাশী ব্যবস্থা গড়ে তােলার জন্য চতুর্দশ অর্থ কমিশনের ২ কোটি ১৩ লক্ষ ৪২ হাজার ব্যয়ের ক্ষেত্রে. পুরসদস্যরা যে ভূমিকা নিয়েছেন ক্ষোভ ভরা সব বাক্যবাণ শুনা গেছে । এনিয়ে । পুরপতি নীহারেন্দ্রনারায়ণ ঠাকুর প্রস্তাব দিয়েছিলেন , এই অর্থে শহরের । ডিআইজি বাংলাের সামনে থেকে শ্যামাপ্রসাদ রােড , জেল রােড , চার্চ রােড , অম্বিকাপট্টি , সুভাষনগর হয়ে রাঙ্গিরখাল পর্যন্ত নালা খােদাই সহ দু ’ দিকে পাকা । দেওয়াল গড়ে এর উপর বসানাে হােক স্ল্যাব । কিন্তু পুরসদস্যরা এতে রাজি হননি , । তাঁরা শহরের প্রতিটি ওয়ার্ডের অভ্যন্তরীণ নালা - নর্দমা সংস্কারে টাকাটা ব্যয় । করার পক্ষে মত ব্যক্ত করেন ।

পেপার. বাংলা নিউজ. বাংলা খবর. নিউজ বাংলা. বাংলা.


পুরসদস্যদের সম্মিলিত চাপে শেষপর্যন্ত টেকেনি । : পুরপতির প্রস্তাব । শহরবাসীর অভিমত , পুরপতির প্রস্তাব বাস্তবায়িত হলে । শহরের বিরাট অংশের জমা জলের সমস্যা লাঘব হত অনেকটাই । কিন্তু । পুরসদস্যরা সংকীর্ণ স্বার্থে তা হতে দেননি , এদিন ডােক্তভােগীদের মুখে বারবারই । শুনা গেছে একথা ।


Comments