শিলচরে তিরুবনন্তপুরম এক্সপ্রেসের ৩টি বগিতে আগুন বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ Skip to main content

শিলচরে তিরুবনন্তপুরম এক্সপ্রেসের ৩টি বগিতে আগুন বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

শিলচরে তিরুবনন্তপুরম এক্সপ্রেসের ৩টি বগিতে আগুন
বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

দাউ দাউ করে জ্বলছে ট্রেনের বগি । রবিবার ।


Silchar , 9 June: বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল শিলচর - আগরতলা প্যাসেঞ্জার ট্রেন । রবিবার সকালে এক বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে ছাই হল তিরুবনন্তপুরম এক্সপ্রেসের তিনটি বগি । শিলচর রেল স্টেশনের চার নম্বর প্ল্যাটফর্মে পার্কিওে থাকা অবস্থায় ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বিভিন্ন মহল থেকে গুঞ্জন শুরু হয় । ওই অগ্নিকাণ্ডের পেছনে কোনও দুষ্কৃতকারী গ্রুপের হাত রয়েছে বলে অনুমান করা হয়েছে । যদিও ঘটনার খবর চাউর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শিলচরের স্টেশন মাস্টার মৃণালকান্তি মণ্ডলের তৎপরতায় দুর্ঘটনা এদিন এড়ানাে সম্ভব হয় । এদিকে , এনএফ রেলের মালিগাঁও হেডকোয়ার্টারের আধিকারিক নৃপেন্দ্র ভট্টাচার্য জানান , এধরনের একটা আকস্মিক ঘটনায় ইতিমধ্যেই বিভাগীয় তদন্ত ঘােষণা করা হয়েছে । তদন্ত রিপাের্ট আসার পরই গােটা ঘটনার প্রকৃত কারণ জানা | যাবে । তিনি বলেন , বন্ধ থাকা অবস্থায় ডাইনিং কার সহ তিনটি কোচ সম্পূর্ণভাবে ভস্মীভূত হওয়া সত্যিকার অর্থ বিস্ময়কর । তবে নির্ধারিত সূচি | মেনেই মঙ্গলবার তিনটি কামরা পাল্টেই যথারীতি তিরুবনন্তপুরম এক্সপ্রেস রওয়ানা হবে ।

Silchar Thiruvananthapuram Express




 জানা যায় , ওই সময় শিলচর স্টেশনের তিন নম্বর প্ল্যাটফর্মে সিগনালের জন্য অপেক্ষায় ছিল শিলচর - আগরতলা প্যাসেঞ্জার ট্রেন । আর সে সময় চার নম্বর প্ল্যাটফর্মে পার্কিং অবস্থায় ছিল তিরুবনন্তপুরম এক্সপ্রেস । এমন সময় হঠাৎ করে আগুন দেখা যায় তিরুবনন্তপুরম এক্সপ্রেসের বগিতে । মুহূর্তের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে তিনটি কোচে । এতে আতঙ্কের সৃষ্টি হয় স্টেশন চত্বরে । তিন নম্বর প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে থাকা শিলচর - আগরতলা প্যাসেঞ্জার ট্রেনের যাত্রীদের মধ্যে শুরু হয় দৌড়ঝাপ । আত্মরক্ষায় যাত্রীদের ছােটাছুটি সামাল দেওয়ার পাশাপাশি রেল কর্মীদের কঁপাতে হয় অগ্নিনির্বাপনের কাজেও । খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই আগুন আয়ত্তে আনতে ঝাপিয়ে পড়েন রেল কর্মীরা । খবর দেওয়া হয় অগ্নিনির্বাপক বাহিনীকেও । রেলকর্মীর । মান্ধাতা আমলের অগ্নিনির্বাপক সামগ্রী ব্যবহারের মাধ্যমে আংশিকভাবে নিজেদের দায়িত্ব সামলান । সে সময় অসংখ্য মেয়াদ উত্তীর্ণ সামগ্রী চোখের সামনে দেখে রেল বিভাগের উপর ক্ষোভ উগড়ে দেন যাত্রীরা । পরিস্থিতি সামাল দিতে এবং সময়ােচিত ব্যবস্থা প্রদানের দাবিতে স্টেশন মাস্টার মৃণালকান্তি মণ্ডল শিলচর - আগরতলা যাত্রীবাহী ট্রেনের পাইলটকে প্ল্যাটফর্ম পরিবর্তনের নির্দেশ দেন । সেই সঙ্গে ট্রেনটি একনম্বর প্ল্যাটফর্মে সরিয়ে আনা হয় । সময়ােচিত এ ব্যবস্থা গ্রহণে এক বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল শিলচর - আগরতলা প্যাসেঞ্জার ট্রেনটি । | এদিকে , ঘটনার খবর পেয়ে তারাপুর থেকে দমকলের তিনটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে ছুটে আসে । প্রায় এক ঘণ্টার প্রচেষ্টায় শেষ পর্যন্ত আগুন আয়ত্তে আনা সম্ভব হয় । যদিও আগেই তিনটি বগি সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়ে যায় । তবে এ ঘটনায় কোনও ধরনের হতাহতের খবর নেই , এটাই স্বস্তির ।

Comments