প্রতিবাদে ছয় ঘণ্টা সড়ক অবরােধ , সার্কল । অফিসারের আশ্বাসে অবরােধ প্রত্যাহার Skip to main content

প্রতিবাদে ছয় ঘণ্টা সড়ক অবরােধ , সার্কল । অফিসারের আশ্বাসে অবরােধ প্রত্যাহার


মরণফাদে পরিণত কালাইন - শিলচর সড়ক

 প্রতিবাদে ছয় ঘণ্টা সড়ক অবরােধ , সার্কল । অফিসারের আশ্বাসে অবরােধ প্রত্যাহার


শিলচর - কালাইন সড়ক সংস্কারের দাবিতে অবরােধ স্থানীয় জনতার । বৃহস্পতিবার ।

silchar kalain news

কাটিগড়া , ১৩ জুন : টানা ৭ - ৮ বছর ধরে চরমভাবে মরণফাঁদে পরিণত হয়ে আছে কালাইন শিলচর সড়ক । এরই প্রতিবাদে বৃস্পতিবার সকাল । ৭টা থেকে বুরুঙ্গা রেল গেট সংলগ্ন । স্থানে ওই সড়কের উপর পশ্চিম শিলচরের ভুক্তভােগী জনগণ সড়ক । অবরােধে বসলে বন্ধ হয় যান । চলাচল । ব্যাহত হয় যােগাযােগ । ব্যবস্থা । সড়কের উভয়পাশে সব ।ধরনের গাড়ির দীর্ঘ লাইন পড়ে । অবরােধকারীরা স্লোগান দিয়ে । আকাশ - বাতাস কাপিয়ে তুলেন । কাটিগড়ার বিধায়ক মুর্দাবাদ , পূর্তমন্ত্রী । মুর্দাবাদ , আসাম সরকার মুর্দাবাদ , পূর্ত । বিভাগ মুর্দাবাদ ইত্যাদি স্লোগানে মুখর । হয়ে ওঠে বৃহত্তর পশ্চিম শিলচর । কাঠফাটা রােদকে উপেক্ষা করে বিকেল ২টা পর্যন্ত চলে অবরােধ । ৬ ঘণ্টা অবরােধ চলা অবস্থায় সাড়ে । বারােটা নাগাদ অবরােধ স্থলে এসে উপস্থিত হন কাটিগড়ার সার্কল ।

Silchar kalain saraka sanskarera dabi sthaniyadera


অফিসার জিতেন টাইট । অবরােধকারীরা তখন সাফ জানন , কোনও ভূয়া প্রতিশ্রুতি নয় , এখনই কাজ শুরু করতে হবে । কাজ শুরু না হলে অবরােধ সরবে না । সংস্কারে । শেষে অবরােধকারীদের নিয়ে । মাঝ সড়কেই আলােচনায় বসতে বাধ । হন সার্কল অফিসার । তিনি সাত দিনের মধ্যে সড়ক সংস্কারের । প্রতিশ্রুতি দিলে অবরােধ সাময়িক প্রত্যাহার করা হয় । সময় অতিক্রান্ত । হলে ফের অনির্দিষ্টকালীন সড়ক অবরােধ তাে বটেই রেল অবরােধের কথাও জানিয়ে দিলেন ভুক্তভােগী জনতা । অবরােধ আন্দোলনে নেতৃত্ব । দেন অজি উদ্দিন আহমদ , সামসুল হক বড়ভূইয়া , তৈয়ব আলম , রাজন । আলি বড়ভূইয়া , বিন্দা সিনহা , হেতেলা সিনহা , কৃষ্ণদাস সিনহা , ! হীরেশ দেবরা । তারা জানান দীর্ঘ বছর । ধরে কালাইন  শিলচর সড়ক ও . শিলচর - জয়ন্তীয়া সড়ক মরণফাঁদে | পরিণত হয়ে আছে । এর প্রতিবাদে লাগাতার আন্দোলন , অবরােধ , ঘেরাও কর্মসূচি পালন করে আসলেও । বিন্দুমাত্র গুরুত্ব দেওয়া হয়নি । উভয় সড়ক সংস্কারের কাজ শুধু প্রতিশ্রুতির । মধ্যে সীমাবদ্ধ রয়েছে । অবরােধকারীরা জানান তিন ।

শিলচর - কালাইন সড়ক সংস্কারের দাবি স্থানীয়দের

Silchar kalain saraka sanskarera dabi sthaniyadera

বিধানসভার আওতাধীন শিলচর , বড়খলা ও কাটিগড়ার নির্বাচিত বিধায়করা অবরােধস্থলে আসা তাে দূরের কথা , তাদের একজন প্রতিনিধি পর্যন্ত উপস্থিত হননি , অবরােধস্থলে । পশ্চিম শিলচরের ১ লক্ষের কাছাকাছি ভােটাররা এত অবহেলিত । বিধায়করা অবহেলার নজরে দেখছেন । প্রতিটি নির্বাচনে পশ্চিম শিলচরের গণদেবতাদের মান ও শান বেড়ে যায় রাজনৈতিক দলগুলির কাছে । ভােট বৈতরণী পার হওয়ার পর এই পাঁচ বছর মানুষ হিসেবে গণ্য করেন না রাজনৈতিক দলের নেতা , কর্মী , জনপ্রতিনিধিরা । আর দেরি নয় , বড় জোর ২ বছর পর বিধানসভা নির্বাচনে দুয়ারে দুয়ারে ভােটভিক্ষা চাইতে যখন রাজনৈতিক নেতারা আসবেন তখনই এর উপযুক্ত জবাব দেবেন পশ্চিম শিলচরের ভুক্তভােগী সর্বস্তরের জনগণ ।

Comments