প্রকৃত শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হলে অন্তর থেকে হিংসা বিদ্বেষ মুছে দিতে হবে Skip to main content

প্রকৃত শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হলে অন্তর থেকে হিংসা বিদ্বেষ মুছে দিতে হবে

প্রকৃত শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হলে অন্তর থেকে হিংসা বিদ্বেষ  মুছে দিতে হবে


ইটখলা ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজের মুহূর্ত । বুধবার ড্রেন দিয়ে তােলা দেবরাজ চক্রবর্তীর ছবি । বক্তব্য রাখছেন ইমাম মওলানা সাব্বির আহমদ লস্কর ( ইনসেটে ) ।



Silchar  , ৫ জুন : শান্তি ও । সম্প্রীতির ধর্ম হল ইসলাম । আমাদের মহাপুরুষ পয়গম্বর হজরত মােহাম্মদ মােস্তফা ( দঃ ) শান্তি আর রহমতের বার্তা নিয়ে এই পৃথিবীতে এসেছেন । আমরা গােটা পৃথিবীতে শান্তিতে বাস করতে চাই । বুধবার বরাক উপত্যকার সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত শিলচর ইটখলা ঈদগাহ ময়দানে নামাজের আগে । বক্তব্য রাখতে গিয়ে শিলচর বড় মসজিদের প্রধান । ইমাম তথা খতিব মওলানা সাব্বির আহমদ লস্কর । উপরােক্ত মন্তব্য করেন । তিনি বক্তব্য রাখতে গিয়ে আরও বলেন , সমাজে শান্তিই হচ্ছে উন্নতির সােপান । অশান্তি অবনতির দিকে নিয়ে যায় । তিনি বলেন , প্রকৃত শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হলে অন্তর থেকে হিংসা - বিদ্বেষ মুছে দিতে হবে । তাহলেই দেশের উন্নতি হবে । পরস্পর আমরা হিংসা বিদ্বেষ নিয়ে বাস করি তাহলে সমাজে কখনও শান্তি আসবে না । মওলানা বলেন , | ভারতবর্ষে হিন্দু - মুসলিম - শিখ - ইসাই আমরা ভাই




ভাই । প্রত্যেকে প্রত্যেকের ধর্ম সঠিকভাবে পালন করলে দুনিয়ায় কোনও হিংসা | বিদ্বেষ হবে না । মওলানা সাব্বির আহমদ ঈদের জামাত থেকে জাতি - ধর্ম - বর্ণ নির্বিশেষে সবাইকে শান্তির বার্তা নিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান । এদিন ঈদের নামাজ শেষে সারা বিশ্বে শান্তি স্থাপন সহ আমাদের পুণ্যভূমি ভারতবর্ষ তথা অসমের উন্নতি ও সার্বিক কল্যাণ কামনা করে সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর দরবারে সকাতরে প্রার্থনা জানান ইমাম । নামাজের আগে ইটখলা ঈদগাহ মসাজদের ইমাম মওলানা সাদিক আহমদ লস্করও রমজানের রােজা ও ঈদ - উল - ফিতর - এর তাৎপর্য তুলে ধরে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন । মওলানা সাদিক বলেন , যারা রমজানের সিয়াম সাধনা করে ঈদের নামাজে অংশ নিয়েছেন তারাই সফল । তিনিও কোরান হাদিসের আলােকে প্রতিবেশির সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে তােলার আহ্বান জানান । । - প্রতি বছরের মত এবারও শিলচরের প্রধান ঈদগাহ - তে ঈদের নামাজ আদায় করতে শিলচর শহরসহ দূরদূরান্ত থেকে আবাল - বৃদ্ধরা নতুন নতুন জামা পরে যােগ দেন । এছাড়াও মাসিমপুর সেনা নিবাস , দয়াপুর সিআরপিএফ ছাউনি ও বড়খলার সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ছাউনি থেকে ইসলাম ধর্মী সেনা জওয়ানরাও অংশ নেন মুসলিমরা নামাজ শেষে পরস্পর আলিঙ্গন ও কোলাকুলি করে ঈদের শুভেচ্ছ বিনিময় করেন । এতে শহরের অমুসলিম ভাইরাও উপস্থিত হয়ে মুসলিম ভাইদের শুভেচ্ছা বিনিময় করতে দেখা গেছে । ঈদগাহ মসজিদের বাইরে সদর রাস্তায় থাক ভিক্ষুক ও দুস্থদের অকাতরে দান খয়রাত করতে দেখা গেছে । - জেলার অন্যান্য স্থানেও শান্তিপূর্ণভাবে চিরাচরিত ধর্মীয় প্রথা ও উৎস উদ্দীপনার সঙ্গে ঈদ - উল - ফিতর পালিত হয়েছে । এদিকে , টিকরবস্তি ঈদগাহে নামাজ পড়ান মওলানা মকবুল হােসেন লস্কর এব | দোয়া দেন নুরুল হক তালুকদার । অন্যান্যবারের মত এবারও অসংখ্য মানুষ ঈদে নামাজে অংশ নেন । মওলানা মকবুল হােসেন লস্কর বলেন , আল্লাহর চোখে কোন ভেদাভেদ নেই । তিনি শান্তি ও সম্প্রীতির মধ্যে জীবন যাপনের জন্য বলেছেন । অন্যদিকে , শহরতলি তােপখানা ঈদগাহতেও বুধবার উৎসাহের সঙ্গে ঈদে নামাজে অংশ নেন সাধারণ মানুষ । এখানে ঈদের নামাজ পরিচালনা করেন বদরপ দেওরাইল টাইটাল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মওলানা আলিম উদ্দিন বড়ভূইয়া । ঈদগা কমিটির সভাপতি আইনজীবী নাজির হােসেন মজুমদার পরে বিশ্ব শান্তি । সৌভ্রাতৃত্ব রক্ষায় প্রাসঙ্গিক বক্তব্য রাখেন ।

Comments